রাউজান নিউজ

রাউজানে অাবারো কুকুরে কামড়ে ৫ জন গুরুত্বর অাহত: ২ দিনে ১১ জনকে কামড়

Exif_JPEG_420

অামির হামজা (রাউজান নিউজ)ঃ

রাউজানে অাবারো কুকুরে কামড়ে ৫ জন গুরুত্বর অাহত: ২ দিনে মোট ১১ জনকে কামড়।
চট্টগ্রামে রাউজান উপজেলায় গত শনিবার ৭জন কে অাহত করার পর, সন্ধ্যায় অারো একজনকে কামড় দেন। অাজ রবিবার সকাল ৮টার সময় এক ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী সনিয়া(১৪) কে কামড় দিয়ে অাহত করেন। সে উপজেলার পাহাড়তলী ইউনিয়নের মোঃ হোসনের মেয়ে।
অাহত অবস্থায় থাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে সনিয়াকে কামড় দেওয়ার পর অাবারো বিকাল সাড়ে ৫টার সময় ৮নং কদলপুর গ্রামের দিকে ছুটে যাওয়া পাগলা কুকুর সামনে যাকে পেয়েছে, তাকেই কামড় দিয়েছে। আহতরা হলেন, ৯নং পাহাড়তলী ইউনিয়নের, ঊনসত্তর পাড়া গ্রামের, শাহাদুল্লাহ কাজীর বাড়ীর মোঃ নুর মোহাম্মাদ এর ছেলে ইমন (৩), ৮নং কদলপুর ইউনিয়নের খলিফা পাড়া গ্রামের মোঃ কামাল (৫০), কদলপুর জয়নগর বড়ুয়া পাড়া গ্রামের টিপু বড়ুয়া (৩৭)। অাহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা জন্য নেওয়া হয়। ঘটনার পরে এলাকার লোকজন লাঠি নিয়ে তাড়া করলে কুকুরটি পালিয়ে যায়।

এদিকে পাড়া-মহল্লায় বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব দেখা দিয়েছে। গত শনিবার কুকুরে কামড়ের খবরটি ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় সবার মধ্যে ভয় ও আতঙ্ক বিরাজ করেন। কুকুরের আতঙ্কে গ্রামের সাধারণ মানুষ নির্ভয়ে চলাচল করতে পারছে না। যেকোনো সময় কামড়াতে পারে পাগল কুকুর।

সরেজমিনে দেখা যায়, স্থানীয় এলাকার ছোট-বড় সবাই যেন লাঠি হাতে নিয়ে বড় সন্ত্রাসী দল’কে দেশ থেকে প্রতিহত করতে সকাল থেকে লাঠি নিয়ে ঘুরাঘুরি ও বিভিন্ন স্থানে টহল দিচ্ছেন। এবং পাগলা কুকুরটি দেখলে লাঠি নিয়ে ছুটাছুটি করছেন।

গত ঈদের পর থেকে এলাকায় কুকুরের কামড়ে ১৩ জন আহত হয়েছেন। এ নিয়ে গ্রামবাসী আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।