রাউজান নিউজ

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রসেনার মানববন্ধনে মাওলানা রেজাউল করিম তালুকদার সড়কে লাশের মিছিল বন্ধ করতে সেনাবাহিনীকে নিরাপত্তার দায়িত্ব দেওয়া হোক

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা ঃ

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রসেনার মানববন্ধনে মাওলানা রেজাউল করিম তালুকদার সড়কে লাশের মিছিল বন্ধ করতে সেনাবাহিনীকে নিরাপত্তার দায়িত্ব দেওয়া হোক। বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার আয়োজনে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে ২ আগস্ট বিকালে বেপরোয়া ড্রাইভিং, ফিটনেস ও লাইসেন্সবিহীন গাড়ী নিষিদ্ধকরণ এবং নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করার দাবিতে মানববন্ধন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মদ সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় প্রচার সচিব মাওলানা মুহাম্মদ রেজাউল করিম তালুকদার। উদ্বোধক ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম উত্তর জেলার প্রকাশনা সম্পাদক এস.এম. জাহাঙ্গীর আলম। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা মুহাম্মদ দিদারুল ইসলাম কাদেরী। বিশেষ বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ ইদ্রিচ। চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথি মাওলানা রেজাউল করিম তালুকদার বলেন, একটি ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার কারণে একজন রোগীর মৃত্যু হয়, আর একজন ড্রাইভারের ভুলের কারণে মারা যেতে পারে বহু মানুষ। একজন ডাক্তার মানুষের নিরাপত্তা নিতে হলে তাকে যদি ৭ থেকে ৮ বছর হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ ও পরীক্ষার মাধ্যমে ডাক্তার হতে হয়। আর যে ড্রাইভারের হাতে ৫০-১০০ জন মানুষের নিরাপত্তা, সে ড্রাইভার কিভাবে প্রশিক্ষণহীন ও নিরক্ষর হয়? তিনি বলেন এমুহুর্তে সড়কে লাশের মিছিল বন্ধ করতে, সড়কে পুলিশের সকল চাঁদাবাজী ও দুর্নীতি বন্ধ এবং নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে, মেডিকেলের মত সড়কের নিরাপত্তার দায়িত্ব¡ভার সেনাবাহিনীকে দেওয়া হোক। এর সাথে চলমান নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করার দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সকল যৌক্তিক দাবী অনতিবিলম্বে বাস্তবয়ন করা হোক। বক্তব্য রাখেন, কে.এম. আজাদ রানা, মুহাম্মদ আলী আকবর, মনির আহমদ, মুহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন, মুহাম্মদ আরেফিন, মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন জাবেদ, মুহাম্মদ আব্দুল খালেক, মুহাম্মদ মোশারফ হোসেন, মুহাম্মদ ইসমাইল, মুহাম্মদ এনামুল হক মুন্না, মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল ফারুক, হাফেজ মুহাম্মদ নঈম উদ্দীন ও মুহাম্মদ তারেক মাহমুদ প্রমুখ।