রাউজান নিউজ

রাউজানে চুয়েটে ক্যাম্প সংলগ্ন দুর্গম পাহাড়ি বনে আগুন

আমির হামজা (রাউজান নিউজ)ঃ
চট্টগ্রামে রাউজানে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও স্থানীয় ৯নং পাহাড়তলী এলাকা সংলগ্ন দুর্গম পাহাড়ি বনের অন্তত বেশ কিছু স্থানে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। এতে হাজার হাজার গাছপালা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। দমকা হাওয়ায় আগুন দাবানলের আকৃতি ধারণ করে ছড়িয়ে পড়ছে। এই অাগুন এক পয়ার্য়ে ছড়িয়ে পড়েন দেশের বড় শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান চুয়েটে এলাকার কিছু অংশে। এতে চুয়েটের বসবাসরত শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মচারীর মধ্যে পুরো এলাকাজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

অাাজ শনিবার (৩১-মার্চ) দুপুর ১১টার দিকে চুয়েটে ও পাহাড়তলী ঊনসত্তর পাড়া পাশ্ববর্তী এলাকার পাহাড়ি বনে এ অগ্নিসংযোগ করা হয়। রাউজান উপজেলার ফায়ার সার্ভিস খবর পেয়ে ১২টা থেকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু অাগুন পাতাসের দমকা হাওয়ায় বাড়তে দেখা দিলে, পরে রাঙ্গুনিয়া, হাটহাজারী অারো ২টি ফায়ার সার্ভিস টিম অাগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ চালিয়ে যাচ্ছিল। আগুন নেভাতে দেখাযায় চুয়েট পুলিশ পার্ড়ি ও স্থানীয় লোকজন ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সহায়তা করছে।

চুয়েট পুলিশ পার্ড়ির এস,আই মোঃ বাবুল   আগুন লাগার ঘটনাটিকে নিশ্চিত করে বলেন, এটি কোন প্রকার নাশকতামূলক ঘটনা নয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। হয়তো পাহাড়ে কোন মানুয়ে বিড়ির অাগুন হতে এমন ঘটনা হতে পারে।স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার ১১টা সময় সকালে পাহাড়ে প্রায় বেশ কিছু বড় বড় পাহাড়ী এলাকাজুড়ে আগুন জ্বলতে শুরু করে। আগুন পাহাড়ে জ্বলতে জ্বলতে বেশি কিছু বনাঞ্চলসহ লোকালয়ে দিকে দ্রুত ধাবিত হয়।

ফায়ার সার্ভিস এর লোকজন জানিয়েছেন, লোকালয়ে ছড়িয়ে পড়া আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা অনেকটাই সম্ভব হয়েছে। তবে বনে আগুন বাতাসে দ্রুত দাবানলের মতো ছড়াচ্ছে। নিয়ন্ত্রণে আনা কঠিন হয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে পাহাড়ে বেশ কিছু স্থানের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। চুয়েট এলাকা বর্তমানে সম্পন নিরার্পদে অাছেন এমন টাই জানান তারা।

স্থানীয় (ইউপি) সদস্যা হাজী অামির হোসেন জানিয়েছেন, ছড়িয়ে পড়া আগুন যেন নতুন করে লোকালয়ের দিকে ধাবিত হতে না পারে সেদিকেই এখন বেশি নজর দেয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এদিকে এই অগ্নিসংযোগের ঘটনাকে একরক নাশকতা বলে দাবি করেছেন। এতে পাহাড়ের বেশ কিছু ফলজ-বনজ গাছ পালার ক্ষতি হয়েছে, অাগুন লাগার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কারা এ আগুন লাগিয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আগে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসুক, তারপর বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।