রাউজান নিউজ

রাউজানে দুই পিংক সিটির প্লট বুঝে পাচ্ছেন জুনের মধ্যেই, বাড়ানো হচ্ছে নতুন প্লট

আমির হামজা (রাউজান নিউজ)ঃ
রাউজানে উত্তর ও দক্ষিণ’এ দুই পিংক সিটির মধ্য নতুন করে প্লট বাড়ানো হচ্ছে। জাতীয় গৃহায়ণ কর্তপক্ষে নেয়া এই দুই প্রকল্পের পুরানো প্লটের সাথে নতুন কিছু প্লট সংযুক্ত হতে যাচ্ছে।
সংশ্লিষ্ট বিভাগ সূত্রে জানাযায় উত্তরের পিংক সিটি-১র সাথে যুক্ত হচ্ছে ৩৬টি প্লট এবং পিংক সিটি-২ (দক্ষিণ) এর সাথেও নতুন প্লট যুক্ত হবে ।

জানাযায় আগের পরিকল্পনায় নেয়া দুটি পিংক সিটির উন্নয়ন এর কাজ এখন প্রায় নব্বই শতাংশ শেষ করা হয়েছে। এখন চলছে প্রকল্প প্লট ম্যাকিং ও অভ্যন্তরীণ রাস্তা তৈরির কাজ। দুই পিংক সিটির কাজ সবকিছু টিক থাকলে আগামী জুনে মধ্যে দুটি প্রকল্পের প্লট গ্রাহকদের বুঝিয়ে পাবে বলে মন্তব্য করেন সংশ্লিষ্ট কৃর্তপক্ষ।
পাহাড়তলী ইউপি চেয়ারম্যান মো: রোকন উদ্দীন বলেন, রাউজানের সংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী রাউজানের মানুষের আবাসনের সমস্যা সমাধানের নেয়া দু’টি প্রকল্প এখন বাস্তবে রূপনিচ্ছে। প্রকল্প দুইটির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এই দুইটি প্রকল্প বস্তবায়ন হলে রাউজান উপ-শহরে পরিণত হবে।
পিংক সিটি-০১এর ২৮ একর জমিতে প্লট করা হয়েছে ২৬২টি। প্রকল্প এলাকার পৌর কাউন্সিলর জমির উদ্দিন পারভেজ বলেন, রাউজানের উত্তরের প্রকল্পটি সবুজ মনোমুগ্ধকর মনোরম একটি স্থান যার পাশ ঘেষে রাউজান রাবার বাগান হওয়ায় এর গুরুত্ব অনেক গুন বৃদ্ধি পেয়েছে।

দক্ষিণ’র পিংক সিটি-২ এর অবস্থান কাপ্তাই সড়ক পথের পাহাড়তলী চৌমুহনীর আগে, এর পার্শ্বে চট্টগ্রাম প্রকৌশল প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, প্রাচিন ঐহিত্য বৌদ্ধ বিহার মুহামুনির মন্দির, বিশ্ব বিখ্যাত ইসলামী চিন্তাবিদ হযরত ইমাম গাজ্জালী রঃ এর নামে প্রতিষ্ঠিত ইমাম গাজ্জালী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, রাউজান ৪২০ মেঘাওয়াট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের অবস্থান।
ইমাম গাজ্জালী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রনেতা মোঃ সালাউদ্দীন বলেন- দক্ষিণে পিংক সিটি-২ এর পারিপাশিক অবস্থান দেখে যে কেহ মনে করবে এটি একটি পরিকল্পিত গোলাপী শহর। যার স্বপ্ন দ্রাষ্টা রাউজানের সাংসদ এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী।

এদিকে উরকিরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ অাবদুল জব্বার সোহেল বলেন, মাননীয় সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্ম-কান্ডের জন্য বদলে যাচ্ছে রাউজান উপজেলা, একটি অাধুনিক এবং বর্তমান সরকার যে ডিজিটাল বাংলাদেশ স্বপ্নের দেশ গড়তে উদ্যোগ নিয়েছে তার কোন অংশে পিছিয়ে নেই আমাদের রাউজান। তিনি আরো বলেন মাননীয় সাংসদের উন্নয়ন পরিকল্পনার মধ্যে পাহাড়তলী এলাকার পাশে একটি আইটি ভিলেজ স্থাপন, চুয়েট পর্যন্ত রেল লাইন সম্প্রসারণ করা।
সূত্র জানিয়েছে, গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ গত ২০১৩ সালের ৩০ জুন আগ্রহী প্লট প্রার্থীদের কাছ থেকে দরখাস্ত আহ্বান করে। সেই সময় প্লট পাওয়ার জন্য হাজার হাজার মানুষ অাবেদন করেছিল। সর্বশেষ একই বছরে ১৯ সেপ্টেম্বর লটারির মাধ্যমে বিজয়ী ভাগ্যবান ব্যক্তিদের নামর তালিকা প্রকাশ করেন গৃহায়ণ কর্তপক্ষ। বিজয়ী গ্রাহকরা তাদের প্লট বুঝে পেতে নির্ধারিত চার সম্মনয় কিস্তিতে ২৪ মাসে মূল্য পরিশোধ করেন। কাটা প্রতি মূল্য ধরা হহয়েছিল চার লক্ষ ৯০ হাজার টাকা। এদিকে দুটি প্রকল্পের আয়তন বৃদ্ধি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গৃহায়ণ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আলিউল ইসলাম বলেন, এমন একটি পরিকল্পনা কর্তপক্ষের কাছে রয়েছে। এই বিভাগ থেকে সম্প্রতি বদলি হয়ে যাওয়া উপ- বিভাগীয় প্রকৌশলী শামশুল আলম জানিয়েছেন, পিংক সিটি-১ এর সাথে আরো নতুন করে ৩৬ প্লট বাড়ানো হচ্ছে।
তবে দক্ষিণের প্রকল্পের প্লট বাড়ানোর বিষয়টি পরীক্ষা নিরিক্ষা করে প্রস্তাব তৈরি করা হচ্ছে।